কাজীর পদ - মোল্লা নাসিরউদ্দিন

      বাদশা কাজীর পদে নিয়োগের জন্য যোগ্য লোক খুজছেন। তাঁর মতে যিনি কাজী হবেন, তিনি হবেন নির্লোভ, বিনয়ী এবং চাল-চুলোহীন গরীব।
      বাদশার লোকেরা খুঁজতে-খুঁজতে মোল্লার বাড়ী গিয়ে দেখেন মোল্লা সাহেবের গায়ে চাদরের মত করে জড়ানো একটা মাছ ধরার জাল।
      একজন জিগ্যেস করে, "সাহেব, আপনার এই বেশ কেন?
      ‘অজ্ঞে, আমি এক সময়ে জেলে ছিলাম, মাছ ধরেই দিন গুজরাণ করতাম। সে কথা ভুলতে চাই না, ভুলতেও পারি না।’
      সবাই দেখলেন মোল্লা বিনয়ী, দরিদ্র এবং নির্লোভ। শেষে সকলের মতে তাঁকেই কাজীর পদ দেওয়া হল।
       কাজী তো হয়েছেন, কিন্তু ঐ পদ পাবার পরদিন বেশ দামী জোব্বা পরে বিচারের আসনে দেখা গেল তাকে।
      তখন দরবারের একজন জিগ্যেস করলেন, ‘মোল্লা সাহেব, আপনার গায়ের সে জাল কোথায় গেল?
     মোল্লার উত্তর, জী, জালটা ত ছিল মাছ ধরার জন্য । তা, মাছ যখন ধরা পড়ে গেছে, তখন ওটার অার দরকার কি?’
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য