কথামতো কাজ

     এক ভদ্রলোক নতুন একটি রসিক ভূত নিয়োগ করেছেন সংসারের কাজের জন্য।
     প্রথম দিনই তিনি ভৃত্যকে বললেন, ‘দোতলাটা ভীষণ নোংরা হয়ে আছে, অনেকদিন ভাল করে পরিষ্কার হয়নি। ভাল করে ঝাঁট দিয়ে জঞ্জালগুলো রাস্তায় ফেলে দিও। কিন্তু দেখো, লোকজন লক্ষ্য করে জঞ্জাল ফেলো। না হলে চাকরি থাকবে না। .
      ভৃত্যটি ঘর ঝাঁট দিয়ে জঞ্জালগুলো এক জায়গায় জড়ো করে রাখল। তারপর রাস্তার দিকে তাকিয়ে অপেক্ষা করতে লাগল।
     একটু পরেই দেখতে পেল, রাস্তা দিয়ে গাড়ি চেপে এক সুবেশ ভদ্রলোক এদিকেই আসছেন। ভৃত্যটি সুযোগের অপেক্ষায় ছিল। মনিবের কথামতো কাজ করতে হবে! নাহলে চাকরি থাকবে না।
     গাড়িটি সামনে আসা মাত্র ভৃত্যটি দোতলা থেকে জঞ্জালগুলো ভদ্রলোকের ওপর ফেলল। ভদ্রলোক সঙ্গে সঙ্গে গাড়ি থেকে নেমে দোতলার দিকে তাকিয়ে গালাগাল করতে শুরু করলেন, ‘কোন হারামজাদা আমার ওপর জঞ্জাল ফেলেছে!’
     হইচই শুনে বাড়ির মালিক নীচে নেমে এলেন। সব শুনে ভৃত্যটিকে মারতে যেতেই ভৃত্যটি সবিনয়ে বলল, আপনিই তো আমাকে আদেশ দিয়েছিলেন হুজুর, ভাল করে লোকজন লক্ষ্য করে জঞ্জাল ফেলতে না হলে চাকরি থাকবে না! আমি আপনার কথামতো কাজ করেছি। এতে আমার কী দোষ?”
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য