ওর মা-র গোলাম

     এক দরিদ্র ব্যক্তি অনেক কষ্ট করে তার ছেলেটিকে লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষ করেছিল।
    ছেলেটি শিক্ষিত হয়ে সরকারি একটি বড় পদে নিযুক্ত হয় এবং সমাজে গণ্যমান্য হয়ে ওঠে কয়েকদিনের মধ্যেই। তারপর শহরে বাস করতে থাকে বিয়ে-থা করে।
     একদিন তার দরিদ্র ও অসহায় বাবা শহরে গেল ছেলে সঙ্গে দেখা করতে; ছেলে কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তির ঘরে বসে গল্প করছিল মনের আনন্দে। হাসি-তামাশাও হচ্ছিল।
     বাবা ঘরে ঢুকে ছেলেকে নাম ধরে ডাকতে একজন জিজ্ঞেস করলেন, ‘এই লোকটি কে হে—তোমার নাম ধরে ডাকছে?’
     ছেলে বাবার পোশাক-আশাকে লজ্জা পেয়ে বলে ফেলল, “এ আমার গোলাম, আমার দেশের বাড়িতে থাকে।
   দরিদ্র বাবা তৎক্ষণাৎ সামান্য সংশোধন করে নিয়ে অতিথিদের বলল, “ঠিক এর নয় বাবুরা, আমি ওঁর মা-র গোলাম। ওঁর মা-র বাড়িতে থাকি।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য