বীরবলের উপদেশ

     আকবর বাদশা একবার বীরবলের প্রতি বিরক্ত হয়ে তাঁকে দরবার থেকে বিদায় করে দেন এবং তাঁর রাজ্য থেকে এখনি চলে যেতে বলেন।
     বীরবলও রাগ করে আকবরের বাদশাহী এলাকা ছেড়ে দূর দেশে চলে যাওয়ার জন্য রওনা দিলেন।
     যেতে যেতে পথে ক্ষুধার্ত হওয়ায় তিনি এক গৃহস্থের বাড়ি গিয়ে আতিথ্য প্রার্থনা করলেন।
    গৃহকর্তা বীরবলের চেহারা দেখে এবং তাঁর সঙ্গে কথাবার্তা বলে বেশ খুশি হলেন এবং জানতে চাইলেন, তিনি কোথায় যাচ্ছেন এবং কোথা থেকে আসছেন।
     বীরবল বললেন, আমি চাকরির অন্বেষণে যাচ্ছি।’
    গৃহস্থ ভদ্রলোক ছিলেন এক সম্ভ্রান্ত বণিক। তিনি বীরবলকে বললেন, ‘এভাবে না ঘুরে আপনি আমার বাড়িতেই চাকরি করুন না।’
     বীরবল বললেন, কী কাজ করতে হবে?
     আপনি তাদের শিক্ষাদানের দায়িত্ব নিন। আপনি ওদের ভার নিলে আমি নিশ্চিন্ত মনে ব্যবসা করতে পারি।’
     বীরবল জানতে চাইলেন, ‘এজন্য মাসিক বেতন কত পাব?
     গৃহস্থ বললেন, গৃহশিক্ষকদের আমি দুটাকা করে মাসিক বেতন দিই, আর খোরপোষ দিয়ে থাকি। তবে আপনার কথাবার্তায় বুঝতে পারছি যে আপনি বেশ বুদ্ধিমান ও সুপণ্ডিত। আপনি যদি আমার ছেলেদের ভার নেন তবে আগের মাস্টারকে যা দিতাম তার চেয়ে এক টাকা বেশি দেব। এর ওপর খোরপোষ তো আছেই। এমনকী বাসস্থানও দেব।’
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য