দর্পচূর্ণ

    বাদশা আকবরের সভায় এক পণ্ডিত এসে গর্বের সঙ্গে বললেন, ‘হুজুর, আমি বুদ্ধিতে পৃথিবী জয় করেছি। আজ পর্যত কোনও পণ্ডিতই আমাকে পরাজিত করতে পারেননি। আপনার সভায় নাকি অনেক নামকরা পণ্ডিত আছেন, আমি তাঁদের তিনটি প্রশ্ন করব। যদি সঠিক উত্তর পাই, তবে আমার এতদিনের সঞ্চিত সমস্ত স্বর্ণপদক তাদের দিয়ে দেব।’
    আকবর রাজি হলেন।
    পণ্ডিতের প্রথম প্রশ্ন : বুদ্ধি থাকে মগজে।সেই বুদ্ধি কখন মগজ থেকে চলে যায়?
   প্রশ্ন শুনে সভাসদরা এ ওঁর মুখের দিকে তাকাতে লাগলেন। তখন বীরবল বললেন, দিন রাত যারা কেবল স্বপ্নের জাল বুনে চলে তাদের মগজ থেকে বুদ্ধি বেরিয়ে যায়।’
    পন্ডিতের দ্বিতীয় প্রশ্ন: ‘শক্তি থাকে শরীরে। সেই শক্তি কখন শরীর থেকে চলে যায়?’
    আবার বীরবল উত্তর দিলেন, মানুষ যখন বয়সের ভারে ভারাক্রান্ত হয় তখন আর তার শরীরে শক্তি থাকে না।’
   তিনি তৃতীয় প্রশ্ন করলেন : ‘সাহস থাকে বুকে। কখন সেই সাহস বুক থেকে চলে যায়? বীরবল বললেন, মানুষ স্বভাবতই ভীরু। তাদের সাহসের বড়ই অভাব। তাই সাহস তাদের বুক থেকে চলে যায়।’
    পণ্ডিত পরাজয় স্বীকার করে মাথা নিচু করলেন এবং কথা অনুযায়ী তার সমস্ত পদক বীরবলকে দিয়ে দিলেন।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য