নদীর বিয়ে

    একদিন বাদশা বীরবলের ওপর খুব রেগে গিয়ে তাকে দেশ থেকে বের করে দিলেন। বীরবল অন্য রাজ্যের রাজার কাছে গিয়ে চাকরি করতে থাকলেন।
    কিছুদিন পর বাদশার রাগ পড়ে গেলে তিনি লোক মারফত অনেক খোঁজাখুঁজি করলেন কিন্তু বীরবলের কোনও খবর পেলেন না। এদিকে বীরবলকে ছাড়া বাদশার রাজসভা একেবারে নীরস হয়ে গিয়েছে। শেষে অনেক ভেবেচিন্তে তিনি একটা বুদ্ধি বের করলেন। প্রত্যেক রাজ্যের রাজার কাছে আমন্ত্রণপত্র পাঠালেন, আমার রাজ্যের এক নদীর বিবাহ উপলক্ষে আপনাদের রাজ্যের প্রত্যেক নদীকে উক্ত বিবাহ সভায় যোগদানের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’
    প্রত্যেক রাজ্যের রাজাই এর কোনও অর্থ বুঝতে না পেরে বাদশাকে অনুরোধ করলেন ব্যাপারটা পরিষ্কার করে লিখে পাঠাতে। কেবলমাত্র একটি রাজ্যের রাজা লিখলেন, আপনার পত্র পেয়ে খুবই আনন্দিত হয়েছি। আপনি যদি আপনার রাজ্যের পুকুরগুলিকে এখানে পাঠান তাহলে আমি তাদের সঙ্গে আমার রাজ্যের নদীদের পাঠিয়ে দেব।’
    বাদশা বুঝলেন বীরবল এই রাজ্যের রাজার কাছেই আছেন, কারণ এমন বুদ্ধি একমাত্র বীরবলের মাথা থেকেই বেরনো সম্ভব। তিনি সঙ্গে সঙ্গে লোক পাঠিয়ে বীরবলকে আবার নিজের রাজ্যে ফিরিয়ে নিয়ে এলেন।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য