এখানে চোর ছ্যাঁচর নেই -- মোল্লা নাসিরউদ্দিন

একবার নাসিরউদ্দিন দূর দেশে গেছেন প্রিয় গাধার পিঠে চেপে। রাত হতে গাধটি এক সরাইখানার আস্তাবলে রেখে একট কামরায় শুতে গেলেন। পাছে চুরি হয় হাই সতর্কতার জন্য টাকার থলি রাখলেন বালিশের নীচে।
সরাইমালিকটি সুবিধার লোক ছিল না । নাসিরউদ্দিনের ঘুমানো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে থাকে ঐ টাকার থলিটা বাগানোর জন্য ।
একে নতুন অজানা-অচেনা জায়গা, তাই নাসিরউদ্দিন চুপচাপ শুয়ে থাকলেও চোখে ঘুম আসছে না ।
রাত যখন গভীর, তখন সরাইখানার মালিকের আর ধৈর্য থাকে না। চুপি চুপি ঘরে ঢুকে অতিথিকে পরীক্ষা করার জন্য বলে, ভাইসাহেব ঘুমিয়েছেন নাকি ?
'না, জেগেই আছি, ঘুম আসছে না।’
'তা হয় নাকি ভাই ? আগামীকাল অনেক দূর যেতে হবে, না ঘুমুলে চলে? আপনার টাকার থলির জন্য আদৌ চিন্তা করবেন না, আমার এখানে চুরি হয় না।’
ও তাই বুঝি ?—নাসিরউদ্দিন ঘুমোবার ভান করে নাক ডাকাতে থাকেন—আর বলেন–‘আমি ঘুমিয়ে পড়েছি, মালিক বলেছেন এখানে চোর ছ্যাঁচড় নেই, চোর ছ্যাচঁড় নেই, চোর ছ্যাচড় নেই, চোর ছ্যাঁচর...’

Previous
Next Post »
0 মন্তব্য