একেই বলে পতিভক্তি

এক মুসলমান সাহেব মারা গেছেন, আজই তাঁকে কবর দেওয়া হল। কবর দিয়ে তার বিবি ফিরে এলেন। বিবি ছিলেন খুব সুন্দরী যুবতী। তাই সেদিন থেকেই আবার সাদির সম্বন্ধ আসতে শুরু করল তার।
একজন বেশ হোমরা চোমরা লোক বিবিকে সাদি করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল। বিবিরও সেই জোয়ান সাহেবকে দেখে পছন্দ। সাহেবও বিবিকে পাওয়ার জন্য অস্থির।
বিবিও গররাজি ছিলেন না। সুতরাং সাদির কথাবার্তাসেই জোয়ানের সঙ্গে পাকাও হয়ে গেল। সেই ভাবী স্বামীর সঙ্গে বেড়াতেও শুরু করলেন বিবি। 

কিন্তু সাদিতে কিছু বিলম্ব ঘটছিল বিবির অনুরোধে। তার কারণ, বিবির পরলোকগত স্বামী মৃত্যুর পূর্বে বিবিকে অনুরোধ জানিয়ে বলেছিলেন, আমি জানি, আমি মারা গেলে তুমি আবার সাদি করবেই। কিন্তু আমার শেষ অনুরোধ, আমার কবরটা অন্তত শুকোতে দিও। শুকোলেই তুমি বিয়ে কোরো। তার আগে আমার আত্মাকে কষ্ট দিয়ে বিয়ে কোরো না।’ 
দুদিন পর পাড়া-প্রতিবেশীরা অবাক হয়ে দেখল, বিবি বসে মৃত স্বামীর কবরে পাখার বাতাস দিচ্ছে প্রায় সারা দিন ধরে। 
তারা এগিয়ে এসে জিজ্ঞেস করল, কী করছ তুমি? এত কষ্ট করছ কেন?’ 
বিবি তো আর বলতে পারে না, পাখার বাতাস দিয়ে মৃত স্বামীর কবর শুকোনোর চেষ্টা করছে, তািই বলল, উনি একেবারেই গরম সইতে পারতেন না, কবরের নীচে ওঁর কতই না কষ্ট হচ্ছে। তাই বসে হাওয়া করছি। এতে নিশ্চয়ই ওঁর কষ্ট হচ্ছে না।" 

সবাই সমস্বরে বিবির পরম পতিভক্তির তারিফ করতে লাগল। আরও বলতে লাগল এমন পতিভক্তি সচরাচর দেখা যায় না।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য