মেয়ের প্রতি উপদেশ --মোল্লা নাসিরউদ্দিন

নাসিরউদ্দিনের একমাত্র মেয়ের বিয়ে হয়ে গেল। স্বয়ং বাদশাও এসেছিলেন নেমন্তন্নে। বিয়ের পরদিন বরযাত্রীদের খাবার-দাবারের পর নতুন বউ নিয়ে বর রওনা হলো নিজের বাড়ীতে ।
তারা যখন বেশ কিছুদূর চলে গেছে—হঠাৎ একটা কথা মনে পড়ে নাসিরউদ্দিনের । তাই তো, মেয়েটাকে স্বামীর বাড়ী যাবার সময় কোনো উপদেশ-টুপদেশ দেয়া হয়নি তো! পিতৃকৃত্যে ত্রুটি থেকে গেছে !
তাই ছুটলেন বরযাত্রীদের পেছনে, গাধায় চড়ে । বেশ কিছুক্ষণ পরে মিলিত হলেন ওদের সঙ্গে। হাঁফাতে হাঁফাতে মেয়ের পাশে পৌছেন তিনি। তারপর ফিসফিস্ করে নির্দেশ দেন, 'দ্যাখো তোমাকে
একটা উপদেশ দিতে ভুলে গেছি মা । বরের বাড়ী গিয়ে যখনই কোন কিছু সেলাই করার জন্য সূঁচে সুতো পরাবে তখন সুতোর একদিকে গিট দিতে যেন ভুল করো না। তা না হলে পুরো সুতোটাই হুড়হুড় করে বেরিয়ে আসবে। বুঝলি মা !
—মেয়ে মাথা নাড়ে । নাসিরউদ্দিনও গাধায় চড়ে নিশ্চিন্ত মনে বাড়ী ফেরেন ।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য