বুদ্ধির জোর বেশি-- মোল্লা নাসিরউদ্দিন

মোল্লা নসিরুদিনের সঙ্গে বাদশার পালোয়ান দোস্তি করতে চায়। একদিন সে নসিরুদ্দিনকে বলে, 'দেখুন, আপনি রাজ্যের সবচেয়ে বুদ্ধিমান ব্যক্তি, আর আমিও অবশ্য কম নই। রাজ্যের সব সেরা পালোয়ান। আমার মতে দু’জনেই সমান-সমান। তাই আমরা পরস্পর বন্ধু হলেই ভালো হয় না কি ?

নসিরুদিন বলেন –বন্ধুত্ব করতে আপত্তি নেই। তবে আপত্তিটা সমান-সমান কথাটায়, গায়ের জোরের চেয়ে বুদ্ধির জোর কি বড় নয় ভাই ?
পালোয়ান বলে—“ঐ যে বিরাট পাথরটা পড়ে আছে পাঁচিলের ধারে, ওটাকে বুদ্ধির জোরে কি তোলা যাবে ? - যাবে না। এই দেখুন ওটাকে দুৎহাতে মাথায় তুলে দূরে ছুড়ে ফেলছি।
–সত্যিই ঐ ভারী পাথরটাকে পালোয়ান দূরে ছুড়ে ফেলে দ্যায়।
দেখে-শুনে নসিরুদিন বলেন,-আচ্ছ। ভাই, এই ছোট্ট রুমালটাকে কি এখান থেকে প্রাচীরের ওপারে ফেলতে পারো ? বলে জোব্বা থেকে নিজের রুমালটাকে বের করে পালোয়ানকে দেন।

‘এই সামান্ত ওজনের জিনিষটা সজোরে ছুঁড়ে দিলেও হাল্কা বলেই বেশী দূরে যেতে পারে না।
‘এবারে দেখ, শুধুমাত্র বুদ্ধির জোরে ওটা আমি দূরে ছুড়ছি, বলেই রুমালে এক টুকরো পাথর জড়িয়ে নসিরুদিন পাঁচিল পার করে দিলেন ।


Previous
Next Post »
0 মন্তব্য