ভাবলাম,খেতেও জানেন না --মোল্লা নাসিরউদ্দিন

নাসিরুদ্দিনকে বাদশা বললেন দেখ, একদিন চলো আমরা দু’জনে কাউকে না জানিয়ে শহরতলীতে এক গ্রামে গিয়ে চড়ুইভাতি করি । তাতে প্রধান রান্না হবে পোলাও আর বিরিয়ানি ।”
ঠিক আছে হুজুর '
দু'জনে চুপিচুপি নির্দিষ্টস্থানে গিয়ে পৌছবার পর বাদশা বললেন, —“দেখ, আমি উনুন ধরাতে জানি না, জানিনা কি করে রান্নাবান্না করতে হয়। আসলে কি জানো,-আমি এ সবের, অর্থাৎ রান্নাবান্নার কিছুই জানি না।’
তাতে কি হয়েছে ?—মোল্লা বলেন, 'আপনি নিশ্চিন্তু মনে ঐ গাছের নীচে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন । যা করার আমি করছি।’
নসিরুদ্দিন উনুন জেলে, তরি-তরকারী, মাংস কেটেকুটে মাত্র একজনের রান্না করে খেয়ে দেয়ে হঁড়িকুড়ি ধুয়ে বসে আছেন, এমন সময় বাদশার ঘুম ভাঙলে।
বাদশ স্নান সেরে এসে দেখেন –খাবার জন্য কিছুই নেই। মনের দুঃখে বললেন, ‘তুমি একা খেলে, আমার জন্য কিছুই রাখনি ?

"হুজুর, আপনি যে বললেন আপনি কিছুই জানেন না । আমিও সে কথা বিশ্বাস করে ভাবলুম-আপনি হয়তো খেতেও জানেন না।’

{--মোল্লা নাসিরউদ্দিন}

Previous
Next Post »
0 মন্তব্য