ইচ্ছে

এক যে ছিল তেপান্তর
করত কেবল ধু ধু।
চাইল একা থাকার দুঃখে
একটি নদী শুধু।
একটি নদী ছোট্ট নদী
কুলুকুলু বইবে,
সাধ হলে তার সাথে দু’টো
মনের কথা কইবে।
ছিল একটা ছোট্ট নদী
সাধাসাধি করতে,
তেপান্তরে বইতে রাজি
হল একটি শর্তে।
পাহাড় আগে চাই একটা 
হবে তারই ঝর্ণা,
নইলে কে যায় তেপান্তরে
দিক না যতই ধরনা!
বললে পাহার আসুক নদী
ঝর্ণা হয়ে ঝরতে,
তার বদলে তাজ তুষারের
চাই যে মাথায় ধরতে

তাই হল। সব পেল সবাই
শাদা মুকুট পাহাড়,
ঝর্ণা থেকে হল নদী
তেপান্তরের বাহার।
যার যা খুশি পেতেও পারে
শুধু চাওয়ার আগে,
ইচ্ছেগুলোয় এই দনিয়ার
ছন্দ যেন লাগে।।


[-- প্রেমেন্দ্র মিত্র]
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য