ভেড়ার রাখাল ও নেকড়ে

মেষপালের পিছু ছিু চলছে এক নেকড়ে। ও ত মেষের দুষমন, কখন কি করে বসে ঠিক কি--এই ভেবে মেষপালক রীতিমত নজর রাখল নেকড়ের দিকে। কিছু পথ চলার পরও যখন দেখা গেল তার কোন দুরভিসন্ধি নেই তখন রাখাল ভাবল ওর দেখছি কোন বদ মতলব নেই, ও তা হলে কুকুরের মতো আমার ভেড়াগুলি পাহারা দিতে পারে।
রাখালের কি কাজে শহরে যাবার প্রয়োজন ছিল। সে তখন ঐ নেকড়ের উপরেই তার মেষগুলো রক্ষণাবেক্ষনের ভার দিয়ে শহরে চলে গেল।

নেকড়ে দেখল-- এই সুযোগ।

রাখাল ফিরে এসে দেখে পালের অনেক ভেড়াই তার সাবাড়। হবেই ত-- নেকড়েকে যেমন আমি ভেড়া পাহারার ভার দিয়ে দিয়েছিলাম, তারই ফল-- এই ভেবে আফসোস করতে লাগল রাখাল।


উপদেশ: লোভী অসাধু লোকের কাছে যখন কেউ ধনসম্পদ গচ্ছিত রাখে তখন তারও এই দশা হয়। অপাত্রে বিশ্বাস ক্ষতির কারন

Previous
Next Post »
0 মন্তব্য