সব সমান হুজুর

সম্রাট ও তাঁর বেগম একদিন বাগানে বসে রাজ্যের ভাল মন্দ আলাপ আলোচনা করছিলেন। বীরবল তাঁদের কাছেই বসেছিলেন। তিনি নর্বাপেক্ষা বিশ্বস্ত মন্ত্রী, তাঁকে বাদ দিয়ে রাজ্যশাসন সংক্রান্ত কোন আলাপই সম্রাট করতেন না। সম্রাট বীরবলকে অত্যন্ত ভালবাসতেন ও বিশ্বাস করতেন। তিনি বীরবলকে নিজের ডান হাতের মতোই বিশ্বাস করতেন।

বেগম এ সময় হঠাৎ প্রশ্ন করলেন, ‘আচ্ছা মন্ত্রিমশাই, দেশে কতজন মেয়ে আর কতজন পুরুষ, ঠিক বলতে পারেন আপনি?
বীরবল সঙ্গে সঙ্গে উত্তর দিলেন, ‘আজ্ঞে হ্যাঁ, পারি বৈকী! ঠিক যতজন পুরুষ, ঠিক ততজনই মেয়ে বেগমসাহেবা।’

বেগম বললেন, ‘কী বলছেন আপনি?’



বীরবল বললেন, ‘মিথ্যে বলিনি বেগমসাহেবা। উভয়ের সংখ্যা একদম সমান। তবে মাঝে মাঝে একটি বিশেষ কারণে এই সংখ্যার ব্যতিক্রম হয়, এই যা অসুবিধা।’
বেগম প্রশ্ন করলেন,‘কীরকম অসুবিধা মন্ত্রিমশাই?’
‘বেয়াদবি ক্ষমা করবেন বেগমসাহেবা,’ বীরবল বললেন, ‘মুশকিল হয় হিজরেদের নিয়ে। লোকগণনার সময় তারা থাকে মেয়ের দলে, কখনও বা পুরুষের দলে। লোকগণনার সময় এই মুশকিল দূর করা অসম্ভব!’
বেগম সাহেবা লজ্জায় মাথা নিচু না করে পারলেন না।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য