লেজকাটা শেয়াল

এক বনের মধ্যে দিয়ে  এক দুষ্টু শেয়াল যাচ্ছিল। যেতে যেতে সে একটা ফাঁদের মধ্যে পড়ে গেল। ফাঁদটা এতো গভীর ছিল যে সেখানে পরে যাওয়া মাত্র আঘাত লেগে  শেয়ালটি অজ্ঞান হয়ে গেল। জ্ঞান ফিরে দেখে তার সুন্দর লেজটি নেই। লেজটি কেটে গিয়েছে আর তা থেকে ঝরঝর করে রক্ত পড়ছে। মনে তার দুঃখ হলো। সে মনে মনে ভাবল, এই লেজহীন জীবন নিয়ে তার বেঁচে থাকার মানেই হয় না। এই কথা ভাবতে ভাবতে হঠাৎ এক ফন্দি এসে গেল তার মাথায়ঃ আর সব জাত-ভাইদেরও যদি এমন লেজহীন করা যায় তাহলে আমাকে কেউ আর কুশ্রী ভাববে না।

এই পরিকল্পনা নিয়ে সে জাতভাইদের এক সভায় ডেকে বলল, শোন ভাইসব,-- আমি একটা কথা বলি,-- লেজ আমাদের অনেক ক্ষতি করে। এটা অতিরিক্ত ভারি কিন্তু কোন কাজের না। বরং কখনও কখনও এই লেজের জন্যই আমরা শিকারীর হাতে ধরা পরি। তোমরা এক কাজ কর, আমার মতো লেজ কেটে ফেল, তাহলে তোমাদেরও আমার মতো ফুরফুরে লাগবে।
সভার মধ্যে থেকে এক শেয়াল বলল, আমি জানি তোমার ফাঁদে পড়ে লেজে কাটা গিয়েছে। তাই তুমি চাইছ আমাদেরও লেজ কেটে ফেলতে। যাও ভাগো... আজ থেকে তুমি আমাদের দলের কেউ না। এই বলে লেজকাটা শেয়ালটাকে সবাই মিলে তাদের দল থেকে বের করে দিল।

উপদেশ: নিজের স্বার্থে যে সকল প্রতিবেশী তোমাকে উপদেশ দেয় তাদের তুমি এড়িয়ে চল।
Previous
Next Post »
1 মন্তব্য