সকলেই পরাধীন

মরুভূমির পথ ধরে দীর্ঘ উটের কাফেলা। সারি সারি ছোট-বড় উট। দীর্ঘ অফুরন্ত রাস্তা ধরে তারা চলছে।
ক্লান্ত উটের দল পথে বিশ্রাম নিতে বসল। তখন এক উটের বাচ্চা তার মাকে হতাশ স্বরে বলল-- মা, আমার হাতে যদি লাগাম থাকত, আমি কখনই এই কাফেলার সঙ্গে এইভাবে বোঝা বহন করতাম না। হায়, আমার কী দুর্ভাগ্য! আমার কোন স্বাধীনতা নেই। আমার পথ চলার পরিচালক অন্য একজন।
উটের মা তখন জবাব দিল-- হায়রে অবোধ শিশু। পরাধনি তুমি একা নও। সকলেই আসলে পরাধীন। মানুষেরও কোন স্বাধীনতা নেই। তাকেও একদিন মৃত্যুবরণ করতে হয়। একজীবনে তাকেও বিপদের মুখোমুখি হতে হয়।
সব বিপদ থেকে সে কি নিজেকে উদ্ধার করতে পারে? যখন মাঝসমুদ্রে ঝরের কবলে জাহাজ আক্রান্ত হয় তখন সুদক্ষ নাবিকও কিছু করতে পারে না। তার আত্মচিৎকারের শব্দ আকাশে মিলিয়ে যায়।
উটের মা তার শিশুকে আদর করতে করতে বলল-- আমরা অন্তত বনের নির্বোধ পশুপাখির চেয়ে ভালো আছি। আমরা কাজ জানি। মানুষ তাই আমাদের ভালোবাসে।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য