হুঁকোমুখো হ্যাংলা


হুঁকোমুখো হ্যাংলা       বাড়ী তার বাঙলা
      মুখে তার হাসি নাই ,দেখেছ?
নাই তার মানে কি?      কেউ তাহা জানে কি?
      কেউ কভু তার কাছে থেকেছ?

শ্যামাদাস মামা তার       আপিঙের থানাদার ,
      আর তার কেউ নাই এছাড়া-
তাই বুঝি একা সে       মুখ খানা ফ্যাকাশে,
      ব'সে আছে কাঁদ কাঁদ বেচারা?

থ্প থ্প পায়ে সে       নাচত যে আয়েসে,
      গাল ভরা ছিল তার ফুর্তি,
গাইত সে সারাদিন       "সারে গামা টিম্ টিম্ ,
      আহ্লাদে গদ-গদ মূর্তি!

এই তো সে দুপু'রে       বসে ওই উপরে,
      খাচ্ছিল কাঁচকলা চটকে-
ওর মাঝে হল কি?       মামা তার মোলো কি?
      অথবা কি ঠ্যাং গেল মটকে?

হুঁকো মুখো হেঁকে কয়,       আরে দূর, তা তো নয়,
      দেখ্ছ না কি রকম চিন্তা?
মাছি মারা ফন্দি এ       যত ভাবি মন দিয়ে-
      ভেবে ভেবে কেটে যায় দিনটা।

বসে যদি ডাইনে,       লেখে মোর আইনে-
      এই ল্যাজে মাছি মারি এস্ত;
বামে যদি বসে তাও,       নাহি আমি পিছপাও,
      এই ল্যাজে আছে তার অস্ত্র!

যদি দেখি কোন পাজি       বসে ঠিক মাঝামাঝি,
      কি যে করি ভেবে নাহি পাইরে-
ভেবে দেখি একি দায়,       কোন্ ল্যাজে মারি তায়
      দুটি বই ল্যাজ মোর নাই রে!

[--সুকুমার রায়]
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য