মাছি বসবে যে

    কবি ভারতচন্দ্র নূতন এক মধুর রসাত্মক কাব্য রচনা করেছেন। এই কাব্যখানা রাজাকে পড়ে আজ শুনাবেন বলে রাজসভায় আসছেন সবাই জানে। গোপালও জানে, আজ রায় গুনাকর আসছেন। সেজন্য গোপাল তাড়াতাড়ি এসেছে। কবি ভারতচন্দ্র আদি রসাত্মক কাব্যগ্রন্থ নিয়ে যখন মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্রকে পড়ে শোনাতে রাজসভায় প্রবেশ করলেন, তখন গোপাল কবিকে কাব্যগ্রন্থখানা হাতে নিয়ে রাজসভায় ঢুকতে দেখে চেঁচিয়ে বলে উঠল, ওকি করছেন দাদা, আপনার হাতের রসের ভান্ডটি ঢেকে রাখুন, নইলে ঝাঁকে ঝাঁকে মাছি উড়ে এসে বসবে, ঝাঁপ দিয়ে পড়বে যে। কবি ও মহরাজা সকলে হাসিতে যোগ দিলেন।
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য