ঘাঁড়ে আর বীরে

ভান্টু ভোরে কুস্তি করে
শক্তি দেহে ধরে না।
গোমার মতো পালোয়ানকে
মোটেই কেয়ার করে না।
ভান্টু দেখায় বুকের ছাতি
আর বলে সে, বনের হাতি
আন না ধরে দেখবি হাতে
কেমন করে লুফি রে।
মোদের তখন চোখ বড় হয়
আর কথা কই চুপি রে।

বিকেলবেলা রাগল হঠাৎ
পাগলা ষাঁড়ে-- ও মা রে!
ভানটু এসে ষাঁড়কে বলে,
দেখাই মজা তোমারে।
এমন সময় ষাঁড়টা রুখে
মারল গুঁতো তাহার বুকে
ভাল্টু পালায় দিঘির দিকে--
অথই পানি যেখানে।
সাঁতার কেটে ষাঁড়কে বলে;
আর তো দেখি এখানে!

[--আহমদ ফয়েজ]
Previous
Next Post »
0 মন্তব্য